এই বছর – ১৪২৯ সালের গ্রহণের তালিকা (২০২২)

 

রিং অফ ফায়ার

১৪২৯ সালের গ্রহণের দৃশ্যাদৃশ্য তালিকা

বর্তমান বছরে সব মিলিয়ে চারটি গ্রহণ হবে। তার মধ্যে দুইটি সূর্যগ্রহণ এবং দুইটি চন্দ্রগ্রহণ।

 

১। আংশিক ( খন্ড) গ্রাস সূর্যগ্রহণ – চূড়ামণিযোগ ( বাংলাদেশ ও ভারতে অদৃশ্য)

 

বাংলাদেশ

বাংলাদেশ ১৭ বৈশাখ, ইং ৩০ এপ্রিল/১লা মে ২০২২ খৃস্টাব্দ , শনি/রবিবার। 

 

গ্রহণ স্পর্শ (আরম্ভ) – রাত্রি ঘ ১২  টা ৪৬ মিঃ ।

গ্রহণ মধ্য –   রাত্রি  ২ টা ৪১ মিঃ ।

গ্রহণ মোক্ষ(সমাপ্তি)-  শেষ রাত্রি ঘ ৪ টা ৩৮ মিঃ ।

গ্রাস মান –   ০.৬৩৯ 

গ্রহণ স্থিতি –  ৩ ঘঃ ৫২ মিঃ

 

ভারতঃ

১৬ বৈশাখ ইং ৩০ এপ্রিল/১লা মে ২০২২ খৃস্টাব্দ , শনি/রবিবার। 

 

গ্রহণ স্পর্শ (আরম্ভ) – রাত্রি ঘ ১২  টা ১৬ মিঃ ।

গ্রহণ মধ্য –   রাত্রি  ২ টা ১১ মিঃ ।

গ্রহণ মোক্ষ(সমাপ্তি)-  শেষ রাত্রি ঘ ৪ টা ৮ মিঃ ।

গ্রাস মান –   ০.৬৩৯ 

গ্রহণ স্থিতি –  ৩ ঘঃ ৫২ মিঃ

 

গ্রহণ দৃশ্য – 

এই গ্রহণ এন্টার্কটিকার উত্তরাংশের বেশিরভাগ অঞ্চলে, দক্ষিন আফ্রিকার দক্ষিনাংশে, প্রশান্ত মহাসাগরের দক্ষিণভাগে এবং আটলান্টিক মহাসাগরের দক্ষিণভাগে দৃশ্য হবে। 

 

অদৃশ্যগ্রহণে পাকপাত্র পরিত্যাগের বিধিনিষেধ নেই।

 

২। পূর্ণগ্রাস চন্দ্রগ্রহণ -চূড়ামণিযোগ ( বাংলাদেশ ও ভারতে অদৃশ্য)

 

ভারতঃ

১লা জৈষ্ঠ, ইং ১৬ মে ২০২২ খৃঃ সোমবার। (বাংলাদেশ সময়ের প্রচলিত স্ট্যান্ডার্ড অনুসারে)

 

গ্রহণ আরম্ভ –  রাত্রি ঘ ৭ টা ৫৮ মিঃ

পূর্ণগ্রাস আরম্ভ –  ঘ ৮ টা ৫৯ মিঃ

গ্রহণ মধ্য –  ঘ ৯ টা ৪২ মিঃ

পূর্ণগ্রাস সমাপ্তি –  ঘ ১০টা ২৪ মিঃ

গ্রহণ সমাপ্তি –  রাত্রি  ঘ ১১টা ২৫ মিঃ

পূর্ণগ্রাস স্থিতি –  ঘ ১টা ৫৪ মিঃ

গ্রহণ স্থিতি –  ৩ ঘন্টা ২৭ মিঃ

গ্রাসমান –  ১.৪২০

উপচ্ছায়া স্পর্শ (প্রবেশ) –  রাত্রি ঘ ৭টা ১ মিঃ

উপচ্ছায়া ত্যাগ –  রাত্রি ঘ ১২ টা ২২ মিঃ

 

বাংলাদেশ

বাংলাদেশ ২ জ্যৈষ্ঠ, ইং ১৬ মে ২০২২ খৃঃ সোমবার। (বাংলাদেশ সময়ের প্রচলিত স্ট্যান্ডার্ড অনুসারে)

 

গ্রহণ আরম্ভ –  রাত্রি ঘ ৮টা ২৮ মিঃ

পূর্ণগ্রাস আরম্ভ –  ঘ ৯টা ২৯ মিঃ

গ্রহণ মধ্য –  ঘ ১০টা ১২ মিঃ

পূর্ণগ্রাস সমাপ্তি –  ঘ ১০টা ৫৪ মিঃ

গ্রহণ সমাপ্তি –  রাত্রি  ঘ ১১টা ৫৫ মিঃ

পূর্ণগ্রাস স্থিতি –  ঘ ১টা ৫৪ মিঃ

গ্রহণ স্থিতি –  ৩ ঘন্টা ২৭ মিঃ

গ্রাসমান –  ১.৪২০

উপচ্ছায়া স্পর্শ (প্রবেশ) –  রাত্রি ঘ ৭টা ৩১ মিঃ

উপচ্ছায়া ত্যাগ –  রাত্রি ঘ ১২ টা ৫২ মিঃ

 

গ্রহণ দৃশ্য- এই গ্রহণ ইউরোপের পশ্চিমাংশে,মধ্যপ্রাচ্যে, আফ্রিকা, উত্তর আমেরিকা, দক্ষিণ আমেরিকা এবং এন্টার্কটিকা ও আটলান্টিক মহাসাগর ও প্রশান্ত মহাসাগরে দৃশ্য হবে।

 

গ্রহন আরম্ভ দৃশ্য – মাদাগাস্কার,কেনিয়া ,ইথিওপিয়া,মিশর, পোল্যান্ড ,সুদান,বুলগেরিয়া রুমানিয়া, জার্মানি এবং নরওয়ে প্রভৃতি দেশে দৃশ্য হবে। 

 

গ্রহণ সমাপ্তি দৃশ্য – নিউজিল্যান্ড ,ফিজি ,কানাডার পশ্চিমাংশের বেশ কিছু অঞ্চল, আলাস্কা দ্বীপপুঞ্জের দক্ষিণ পূরবাংশের বেশ কিছু অঞ্চলে এবং প্রশান্ত মহাসাগরের উত্তরভাগে দৃশ্য হবে।

 

অদৃশ্যগ্রহণে পাকপাত্র পরিত্যাগের বিধিনিষেধ নেই।

 

grahan time

 

৩। খন্ডগ্রাস সূর্য্যগ্রহণ (বাংলাদেশ সহ সমগ্র ভারতে দৃশ্য)

 

৭ই কার্ত্তিক, ইং ২৫ অক্টোবর ২০২২, মঙ্গলবার।  (বাংলাদেশ সময়ের প্রচলিত স্ট্যান্ডার্ড অনুসারে)

 

 ভারতঃ

গ্রহণ আরম্ভ –  দিবা ঘ ২টা ২৯ মিঃ 

গ্রহন মধ্য –  অপরাহ্ণ ঘ ৪ টা ৩০ টা

গ্রহণ সমাপ্তি – রাত্রি ঘ ৬ টা ৩২ মিঃ

গ্রাসমান –  ০.৮৬১

গ্রহণের স্থিতিকাল – ৪ ঘন্টা ৩ মিনিট

 

বাংলাদেশঃ

গ্রহণ আরম্ভ –  দিবা ঘ ২টা ৫৯ মিঃ 

গ্রহন মধ্য –  অপরাহ্ণ ঘ ৫ টা

গ্রহণ সমাপ্তি – রাত্রি ঘ ৭ টা ২ মিঃ

গ্রাসমান –  ০.৮৬১

গ্রহণের স্থিতিকাল – ৪ ঘন্টা ৩ মিনিট

গ্রহণ দৃশ্য – এই গ্রহণ স্পর্শ(আরম্ভ) আন্দাবন ও নিকোবর দীপপুঞ্জ , ভারতবর্ষের উত্তর পূর্বাংশের কয়েকটি অঞ্চলে যথা-(আইজল, ডিব্রুগড়, ইম্ফল ইটানগর, কোহিমা, শিবসাগর, শিলচর ও তামেলং) দৃশ্য হইবে।

এই গ্রহণের মোক্ষ(সমাপ্তি) সূর্য্যাস্তের পর সমাপ্তি হওয়ায় বাংলাদেশ ও ভারতবর্ষের কোন অঞ্চল হইতে দৃশ্য হইবে না।

 

গ্রহণ দর্শনে শুভাশুভ – এই গ্রহণ বৃষ, মিথুন, সিংহ, কন্যা ও ধনুরাশির দর্শনে শুভ। উক্ত রাশি হইলেও ঘ ৩।৫০।৫১ মধ্যে জন্মতারা জন্য মৃগশিরানক্ষত্রযুক্ত বৃষ ও মিথুনরাশির দর্শন নিষিদ্ধ। এতদ্ভিন্ন রাশির দর্শনে অশুভ। গ্রহন দর্শনকারী মাত্রেরই গ্রহণ স্নান অবশ্য কর্ত্তব্য। দৈবাৎ দর্শনে বিপ্রকে স্বর্ণ দান কর্তব্য। তন্ত্রোক্ত মন্ত্র পূরশ্চণকারীদের পক্ষে এই রাশ্যাদি বিচার অনাবশ্যক। বৈধ দর্শনকারী মাত্রেরই গ্রহণ স্নান অবশ্য কর্ত্তব্য।

 

গ্রহন দর্শনের অন্যান্য স্থান –  এই গ্রহনে ইউরোপ, মিডল ইস্ট, উত্তর আফ্রিকা,এশিয়ার পশ্চিমাংশে, আটলান্টিক উত্তর ভাগে এবং ভারত মহাসাগরের উত্তর ভাগে দৃশ্য হইবে। 

 

যে সকল স্থানে দৃশ্য হইবে সে সকল স্থানে পাকপাত্র পরিত্যাগ করা বিধেয়।

 

৪। পূর্ণগ্রাস চন্দ্রগ্রহন (বাংলাদেশে গ্রস্তোদয় দৃশ্য)

 

২১ শে কার্ত্তিক, ইং ৮ই নভেম্বর ২০২২, মঙ্গলবার( বাংলাদেশ সময়ের প্রচলিত স্ট্যান্ডার্ড অনুসারে)

 

ভারত

পৃথিবীতে গ্রহন স্পর্শ(আরম্ভ) –  অপরাহ্ণ ঘ ২ টা ৩৯ মিঃ 

পূর্ণগ্রাস আরম্ভ –  ঘ ৩ টা ৪৬ মিঃ

গ্রহণ মধ্য –  ঘ ৪টা ২৯ মিঃ

পূর্ণগ্রাস সমাপ্তি – ঘ ৫ টা ১২ মিঃ

গ্রহণ সমাপ্তি –  ঘ ৬ টা ১৯ মিঃ

পূর্ণগ্রাস স্থিতি –  ১ ঘঃ ২৬ মিঃ

গ্রহণ স্থিতি –  ঘ ৩ ঘঃ ৪০ মিঃ

গ্রাসমান –  ১.৩৬৩

উপচ্ছায়া স্পর্শ (প্রবেশ) – ঘ ১ টা ৩০ মিঃ

উপচ্ছায়া ত্যাগ –  ঘ ৭ টা ২৮ মিঃ

 

বাংলাদেশঃ

পৃথিবীতে গ্রহন স্পর্শ(আরম্ভ) –  অপরাহ্ণ ঘ ৩ টা ৯ মিঃ 

পূর্ণগ্রাস আরম্ভ –  ঘ ৪ টা ১৬ মিঃ

গ্রহণ মধ্য –  ঘ ৪টা ৫৯ মিঃ

পূর্ণগ্রাস সমাপ্তি – ঘ ৫ টা ৪২ মিঃ

গ্রহণ সমাপ্তি –  ঘ ৬ টা ৪৯ মিঃ

পূর্ণগ্রাস স্থিতি –  ১ টা ২৬ মিঃ

গ্রহণ স্থিতি –  ঘ ৩ টা ৪০ মিঃ

গ্রাসমান –  ১.৩৬৩

উপচ্ছায়া স্পর্শ (প্রবেশ) – ঘ ২ টা

উপচ্ছায়া ত্যাগ –  ঘ ৭ টা ৫৮ মিঃ

 

গ্রহন দর্শনের স্থান – এই গ্রহণ দক্ষিণ আমেরিকা, উত্তর আমেরিকা, অস্ট্রেলিয়া,এশিয়া, আটলান্টিক মহাসাহরের উত্তর ভাগে এবং প্রশান্ত মহাসাগরে দৃশ্য হইবে।

 

গ্রহণ আরম্ভ(স্পর্শ) দৃশ্য – চন্দ্রাস্তের সময় আর্জেন্টিনার পশ্চিমাঞ্চল, চিলি, বলিভিয়া, ব্রাজিলের পশ্চিমাঞ্চলে এবং আটলান্টিক মহাসাগরের উত্তরভাগে।

গ্রহণ সমাপ্তি(মোক্ষ) দৃশ্য-চন্দ্রোদয়ের সময়ে ভারত মহাসাগর, ভারতবর্ষ, পাকিস্তান, আফগানিস্থান, কাজাকিস্তান, উজবেকিস্তান এবং রাশিয়ার পূর্বাংশে।

গ্রহণ দর্শনে শুভাশুভ –  এই গ্রহণ মিথুন, বৃশ্চিক, ধনুঃ, কুম্ভ ও মীনরাশির দর্শনে শুভ। উক্ত রাশি হইলেও জন্মতারা জন্য পূর্বাষাঢ়নক্ষত্রযুক্ত ধনুরাশির দর্শন নিষিদ্ধ। এতদ্ভিন্ন রাশির দর্শনে অশুভ। গ্রহন দর্শনকারী মাত্রেরই গ্রহণ স্নান অবশ্য কর্ত্তব্য। দৈবাৎ দর্শনে বিপ্রকে স্বর্ণ দান কর্তব্য। তন্ত্রোক্ত মন্ত্র পূরশ্চণকারীদের পক্ষে এই রাশ্যাদি বিচার অনাবশ্যক। বৈধ দর্শনকারী মাত্রেরই গ্রহণ স্নান অবশ্য কর্ত্তব্য।

 

যে সকল স্থানে দৃশ্য হইবে সে সকল স্থানে পাকপাত্র পরিত্যাগ করা বিধেয়।

 

.